Home / All Categorized / ডুয়েট পড়ুয়া দিনাজপুরের ছেলে রাসেল রানার রোবটিক্স এ সাফল্য

ডুয়েট পড়ুয়া দিনাজপুরের ছেলে রাসেল রানার রোবটিক্স এ সাফল্য

ছোট বেলা থেকেই বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি ইলেকট্রনিক্স জিনিসের প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসা ছিল রাসেল রানার…

 রাসেল রানার বাড়ী আমাদের দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার ঝাড়বারির কাশিমনগর গ্রামে, বাবা মৃত্য হাফিজুল ইসলাম। মাধ্যমিক পাস করার পরে রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এ ইলেকট্রনিক্স বিভাগে ভর্তি হয়। ইলেকট্রনিক্সে ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার সময় ইলেকট্রনিক্সের বিভিন্ন খুঁটিনাটি সম্পর্কে জেনেছে । এই সময়ে রোবটের মুল উপাদান মাইক্রোকন্ট্রোলার এর ব্যবহারও শিখেছিল ভালভাবেই । ডিপ্লোমা শেষ করার পরে স্নাতক করার জন্য ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন এবং ভর্তি পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স বিভাগে পড়ালেখা করার সুযোগ পান । রাসেল রানা শুধু পড়ালেখার মাঝেই নিজেকে সীমাবদ্ধ করে রাখেনি বরং তার পূর্বের মাইক্রোকন্ট্রোলার ও ইলেকট্রনিক্স বিষয়ক জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে কিছু করার চেষ্টা করেন । অবশেষে ডুয়েট রোবটিক্স ক্লাবের হাত ধরে রোবট বানানোর কাজে মনোনিবেশ করেন এবং সুযোগ খুঁজতে থাকেন । তার দক্ষতার প্রমাণের প্রথম সিঁড়িতে পা রাখেন ২০১৫ তে রুয়েটে ‘আই-ইইই’ আয়োজিত‘ রোবোট্যুর ও প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট’ – এ তার দল দ্বিতীয় রানার্স আপ হওয়ার মাধ্যমে । একই বছর ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি (আইইউটি)’ এ আয়োজিত‘ ম্যাক্সিলারেশন- ২০১৫’ তে একই সাফল্য পান। কিন্তু দ্বিতীয় রানার্স আপে সন্তুষ্ট ছিলেন না রাসেল রানা। পরিশ্রম করতে থাকেন বড় সাফল্যের জন্য। নিজেদের সাফ্যলের ঝুলিকে আরও বড় করতে সমর্থ হন গত ৩০ এপ্রিল ২০১৬ তে। ‘মিলিটারি ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজিতে (এমআইএসটি)’ আয়োজিত ‘রোবোলুশন-২০১৬’ তে তার নেতৃত্বাধীন দল “ডুয়েট রোবো একপ্রেস” ‘লাইন ফলোয়ার রেস’ ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হয়। জিতে নেয় ৫০ হাজার টাকা। এখানে মোট ১১৪ টি দল দেশের সেরা ইউনিভার্সিটি গুলো থেকে অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্য থেকে চূড়ান্ত পর্বে ৭ টি দল সুযোগ পায় । ‘ডুয়েট রোবো একপ্রেস ’এর রোবট মাত্র ২ মিনিট ৫৭ সেকেন্ডে কাজ শেষ করে চ্যাম্পিয়ন হয় । এখানেই থেমে থাকে নি রাসেলের অর্জন এর পরে ৫-৬ তারিখে রুয়েটে অনুষ্ঠিত‘ রোবো ড্রোয়েড চ্যাম্পিয়ন শিপ – ২০১৬’ তে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে । এরপরে গত ২৮ থেকে ৩১ অক্টোবর নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত সাইবারনট প্রতিযোগিতায় আবারো লাইন ফলোয়ারে চ্যাম্পিয়ন হয় ‘ডুয়েট রোবো এক্সপ্রেস’ যার টিমলিডার ওই রাসেল রানাই । সাইবারনটে ৯৫ টি দল অংশ গ্রহণ করে। প্রথম রাউন্ড থেকে মাত্র আটটি দল সেমি ফাইনালে যেতে পেরেছে। সেখান থেকে ফাইনালে যায় চারটি দল। সেই রাউন্ডে তার রোবট মাত্র ৫৭ সেকেন্ডের মধ্যে ট্রাক সম্পন্ন করেছে । এই প্রতিযোগিতায় তাদের রোবট টি তিন টি রাউন্ডেই প্রথম হয়েছিল । পুরষ্কার হিসেবে পেয়েছেন ২৫ হাজার টাকা । এখানেই সমাপ্ত নয় গত ২৬শে নভেম্বর অনুষ্ঠিত টেক ফেস্ট ২০১৬ বাংলাদেশর উন্ডে ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ ক্যাটাগরিতে প্রথম হওয়া টিমের সদস্য ছিলেন রাসেল রানা । তাদের টিম ‘আইআইটি’ বোম্বেতে আয়োজিত টেক ফেস্টের আন্তর্জাতিক রাউন্ডে অংশগ্রহণের সুযোগ পায় । টিমের তিন মেম্বার ইন্ডিয়াতে গেলেও রাসেল রানার পাসপোর্ট ও ভিসা জনিত কারণে ইন্ডিয়াতে যাওয়া সম্ভব হয়নি । তাদের টিম ‘আইআই’ টি বোম্বে টেক ফেস্টে এ ৫ম স্থান অধিকার করে। বর্তমানে রাসেল রানা ডুয়েটে ফাইনাল ইয়ারে পড়ছেন এবং ডুয়েটে তার দুই টিম রোবট টিম “ডুয়েট রোবো এক্সপ্রেস” ওড্রোন টিম “ডুয়েট রানওয়ে৭১” আছে। এবং তিনি “আই ইইই” ডুয়েট স্টুডেন্ট ব্রাঞ্চ এর সহ সভাপতি ও “ডুয়েট রোবটিক্স ক্লাব” এর সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার ব্যাপারে জানতে চাইলে রাসেল রানা বলেন, রোবটিক্সের উপর উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের সাথে সাথে দেশের আটো মেশনের চাহিদা পূরণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যেতে চাই …

 

ম্যাক্সিলারেশন প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার গ্রহণ

ম্যাক্সিলারেশন প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার গ্রহণ

ম্যাক্সিলারেশন প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার গ্রহণ

ম্যাক্সিলারেশন প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার গ্রহণ করার পর

 

 

 

 

 

 

 

 

রোবোলুশন প্রতিযোগটায় পুরষ্কার গ্রহণ

রোবোলুশন প্রতিযোগটায় পুরষ্কার গ্রহণ

সাইবারনটে চ্যাম্পিয়ন টিম

সাইবারনটে চ্যাম্পিয়ন টিম

Facebook Comments
Share This Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শোলাকিয়াকে ছাড়িয়ে প্রথম বারের মতো দিনাজপুরে অনুষ্ঠিত হলো ‘উপমহাদেশের সর্ববৃহত্তম’ ঈদ জামাত!

প্রায় আড়াই লক্ষাধিক মুসল্লির সমাগমে দিনাজপুরে অনুষ্ঠিত হলো উপমহাদেশের সর্ববৃহত্তম ঈদের জামাত। দিনাজপুরের গোর-এ-শহীদ বড় ...