Home / উপজেলা / ফুলবাড়ী / ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ

ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ

ফুলবাড়ী উপজেলার কোলাহলমুক্ত পরিবেশে ২০.৯৮ একর জমির উপরে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ অবস্থিত। কলেজটির পূর্বদিকে ৫১ নং ছোট যমুনা নদী, উত্তর দিকে সড়ক ও জনপথের রাস্তা, পশ্চিম দিকে ফুলবাড়ী – মাদিলাহাট পাকা রাস্তা এবং দক্ষিণ দিকে বাজার। কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবশায় শিক্ষা শাখায় ; স্নাতক পাস পর্যায়ে বি.এসসি., বি.এ., বি.এস.এস. ও বি.বি.এস. শাখায় এবং স্নাতক সম্মান পর্যায়ে বাংলা, ইংরেজী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, দর্শন, রসায়ন এবং গণিত বিষয়ে পাঠ দান করা হয়। অত্র কলেজে প্রায় ২৩৫০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত রয়েছে।
অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ সহ ৫১ টি পদের মধ্যে ৩৫ জন শিক্ষক, প্রদর্শকের ০৪ টি পদের মধ্যে ০১ জন কর্মরত আছেন, সহকারি লাইব্রেরীয়ান এর একটি পদ যা শুন্য আছে। তৃতীয় শ্রেণির অফিস কর্মচারীর ০৪টি পদের মধ্যে ০১ জন এবং ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীর ১৯টি পদের মধ্যে ০২ জন কর্মরত আছে। খন্ডকালীন শিক্ষক ০৩ জন এবং মাস্টার রোল কর্মচারী ১৭ জন আছে।

fulbari govt collage

প্রতিষ্ঠাকালঃ ১৯৬৩ খ্রি.
প্রতিষ্ঠানের ইতিহাসঃ
শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। একজন সুশিক্ষিত ব্যক্তিই পারে সমাজ তথা দেশের উন্নয়ন ঘটাতে, কুসংষ্কার দূর করে সভ্য সমাজ গড়তে। এমনই মানসিকতা নিয়ে ফুলবাড়ী উপজেলার কিছু শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি যেমন প্রাক্তন এম. এন. এ. নূরুল হুদা চৌধুরি, জনাব শফিউদ্দিন, প্রাক্তন চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ হোসেন, জনাব সৈয়দ সালাউদ্দিন আবু তাহের, জনাব হাফেজ উদ্দিন আকন্দ, অধ্যক্ষ আব্দুল আজিজ, উপাধ্যক্ষ আব্দুস সামাদ প্রমুখ ব্যক্তিগণসহ অত্র এলাকার সর্বস্তরের জনগণ বানিজ্য শহর ফুলবাড়ী সহ অত্রাঞ্চলে শিক্ষা বিস্তার ঘটাতে স্বতস্ফুর্তভাবে এগিয়ে আসেন। তাদেরই অক্লান্ত শ্রম, মেধা ও অর্থে দক্ষিণ দিনাজপুরের ৭ টি উপজেলা চিরিরবন্দর, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী, নবাবগজ্ঞ, বিরামপুর, হাকিমপুর, ও ঘোরাঘাট এর সমন্বয়ে ফুলবাড়ী উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে কোলাহল মুক্ত পরিবেশে ১৯৬৩ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্টিত হয় ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ।
প্রতিষ্টালগ্ন থেকে ১৯৮৯ খি. পর্যন্ত সময়ে প্রাক্তন অধ্যক্ষ জনাব আব্দুল আজিজ এবং উপাধ্যক্ষ আব্দুস সামাদ শক্ত হাতে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে কলেজটি পরিচালনা করেন। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবী প্রাক্তন উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব শামছুদ্দিন আহম্মদ (কাঁতাওড়া) সহ শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সহযোগীতায় অত্র কলেজে বি.এসসি. কোর্স চালু হয়। ফুলবাড়ীর কৃতি সন্তান গণপ্রজাতান্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্জ মোঃ মনসুর আলী সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় তৎকালীন মহামান্য রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর ঘোষণার মাধ্যমে ০৫/১১/১৯৮৯ খ্রি. তারিখে কলেজটি জাতীয়করণ করা হয়।
জাতীয়করণের পর কলেজটিকে সঠিকভাবে গোছানোর এবং উন্নয়নের মূল দায়িত্ব পালন করেন অধ্যক্ষ প্রফেসর এ.টি.এম. সাইদুর রহমান। ঐ সময় ফুলবাড়ীর কৃতি সন্তান জনাব এ্যডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (ফিজার) এম.পি. মহোদয় এর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় দুইটি এ্যাকাডেমিক ভবন (একটি তিন তলা ও একটি দুই তলা) নির্মিত হয় এবং জমি সংক্রান্ত কিছু সমস্যা সমাধান হয়। অত্র কলেজের ২০.৯৮ একর জমি, একটি খেলার মাঠ, ১টি ছাত্রাবাস, ২টি এ্যাকাডেমিক ভবন ১৯টি শ্রেণিকক্ষ, ১টি গ্রন্থাগার, ৫টি গবেষণাগার, শিক্ষক কমন রুম, অধাক্ষের কক্ষ, উপাধ্যক্ষের কক্ষ, অফিস কক্ষ, এবং ১টি জামে মসজিদ রয়েছে। কলেজটির পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, প্রাণিবিদ্যা ও উদ্ভিদবিদ্যা গবেষণাগার এবং লাইব্রেরী অন্ত্যন্ত সমৃদ্ধশালী।
কলেজটিতে অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, ১১টি সহযোগী অধ্যাপক ১৩ টি সহকারী অধ্যাপক ও ২৫ টি প্রভাষক সহ মোট ৫১ টি পদ রয়েছে। বাংলা, ইংরেজী, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, প্রাণিবিদ্যা, উদ্ভিদবিদ্যা, গণিত, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, দর্শন, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, অর্থনীতি, হিসাববিজ্ঞান, মার্কেটিং, ব্যাবস্থাপনা, এবং ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং সহ মোট ১৬ টি বিষয়ে পাঠদান করা হয়। এ ছাড়া অত্র এলাকার গুরুত্ব বিচার করে উচ্চ শিক্ষার প্রসারে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজটিতে অনার্স কোর্স চালুর প্রয়োজনীয়তা অনিবার্য হয়ে পড়ে।
বিষয়টি অত্র এলাকার কৃতি সন্তান গণপ্রজাতান্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথকালীন ভূমি মন্ত্রণালয়ের মানণীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব এ্যডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (ফিজার) এম.পি. মহোদয়ের নিকট পেশ করা হলে তিনি বিষয়টির উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দেন এবং ব্যবস্থা গ্রহন করেন। অত্র এলাকার উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম করার লক্ষে তিনি অত্র কলেজে অনার্স কোর্স চালুর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখেন। ২০১২ – ২০১৩ শিক্ষা বর্ষে অত্র কলেজে অনার্স কোর্স চালুর জন্য পূনরায় আবেদন করা হয়। কর্তব্যরত অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার দেব এবং উপাধ্যক্ষ জনাব মোঃ ফিরজ আলম মোল্যা কলেজের সার্বিক বাবস্থাপনার উন্নয়ন সহ অনার্স কোর্স চালুর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখেন। অবশেষে গণপ্রজাতান্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথকালীন ভূমি মন্ত্রণালয়ের মানণীয় প্রতিমন্ত্রী এবং অত্র এলাকার কৃতি সন্তান জনাব এ্যডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (ফিজার) এম.পি. মহোদয়ের প্রচেষ্টায় ২০১৩ – ২০১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে বাংলা ও গণিত বিষয়ে প্রথম অনার্স কোর্স চালু হয় এবং ২০/১০/২০১৩ খ্রি. তারিখে তিনি প্রথম অনার্স কোর্স উদ্বোধন করেন।
অত্র এলাকার কৃতি সন্তান এবং গণপ্রজাতান্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মানণীয় মন্ত্রী জনাব এ্যডভোকেট আলহাজ্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (ফিজার) এম.পি. মহোদয়ের প্রচেষ্টায় ২০১৪ – ২০১৫ শিক্ষাবর্ষ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান, দর্শন, ইংরেজী ও রসায়ন বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু হয়। এ ছাড়া অত্র কলেজে নতুন একাডেমিক ভবন, ছাত্রী নিবাস নির্মান সহ সার্বিক উন্নয়নে তাঁর সুদৃষ্টি রয়েছে।
কর্তব্যরত উপাধ্যক্ষ জনাব মোঃ ফিরজ আলম মোল্যা ৩০/০৩/২০১৫ খ্রি. তারিখে অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করেন এবং কলেজের সার্বিক বাবস্থাপনার উন্নয়ন, অন্যান্য বিষয়ে পদ সৃষ্টি সহ অনার্স কোর্স চালুর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখেন। অধ্যক্ষ প্রফেসর ব্রজেন্দ্রনাথ রায় ০৬/১০/২০১৫ ইং তারিখে অত্র কলেজে যোগদান পূর্বক কলেজের সার্বিক ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।

Facebook Comments
Share This Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আমবাড়ীর হাট (আঞ্চ‌লিক ভাষায়)

দিনাজপুরের আমবাড়ী হাট -‌মোঃ মোসা‌দ্দেক হো‌সেন (আমবাড়ী থে‌কে আইএফ নয়ন আহমেদ এর অনু‌রো‌ধে দিনাজপু‌রের আঞ্চ‌লিক ...